আইসিসির ‘প্লেয়ার অফ দ্য মান্থ’ হওয়ার তালিকায় জায়গা পেলো ৪ ভারতী ক্রিকেটার

কিছুদিন আগেই ২০২০ সালের শেষে আইসিসি অ্যাওয়ার্ড অফ দ্য ডিকেড ঘোষণা করেছিল। যেখানে আইসিসি তিন ফর্ম্যাটে দশকের সর্বশ্রেষ্ঠ একাদশের ঘোষণা করেছিল।

এরমধ্যে তিন ফর্ম্যাটেই এই সর্বশ্রেষ্ঠ একাদশের অধিনায়কত্ব ভারতীয় খেলোয়াড়দেরই দেওয়া হয়েছিল। এছাড়াও ক্রিকেটের সর্বোচ্চ পরিষদ খেলোয়াড়দের ব্যক্তিগতভাবে পুরস্কারে সম্মানিত করেছিল।

এছাড়াও আইসিসি এই বছর আরও একটি নতুন পুরস্কারের ঘোষনা করেহে। এই পুরস্কারের ফলাফল আইসিসি সোশ্যাল মিডিয়ায় সমর্থকদের ভোটের মাধ্যমে ঠিক করবে। এতে বেশকিছু প্রাক্তন ক্রিকেটার আর বিশ্বের বেশকিছু ক্রীড়া সাংবাদিক শামিল হবেন।

আইসিসি ক্রিকেটে খেলোয়াড়দের সম্মানিত করার জন্য নতুন ‘প্লেয়ার অফ দ্য মান্থ’ পুরস্কারের ঘোষণা করেছে। এই পুরস্কারে মহিলা আর পুরুষ ক্রিকেট দুর্দান্ত প্রদর্শন করা খেলোয়াড়দের সম্মানিত করা হবে।

এই পুরস্কারের জন্য খেলোয়াড়দের প্রদর্শনের পরিমাপ জানুয়ারি ২০২১ থেকে করা হবে। বছরের প্রথম মাসেই এই পুরস্কারের দাবীদার হিসেবে বেশকিছু খেলোয়াড় দুর্দান্ত প্রদর্শন করেছেন।

এই খেলোয়াড়দের মধ্যে ভারতীয় জোরে বোলার মহম্মদ সিরাজ, ভারতীয় তরুণ অলরাউন্ডার ওয়াশিংটন সুন্দর, ভারতীয় তরুণ জোরে বোলার টি নটরাজন, ভারতীয় তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থ, ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট, তারকা অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথের নাম শামিল রয়েছে।

সিরাজ, সুন্দর আর নটরাজন অস্টেলিয়া সফরে ভারতীয় দলের ২-১ এ ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন।

এছাড়াও ভারতের বিরুদ্ধে সিডনিতে হওয়া তৃতীয় টেস্টে প্রাক্তন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক আর তারকা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ একটি স্মরণীয় সেঞ্চুরি করেছিলেন।

তবে তার এই সেঞ্চুরি অস্ট্রেলিয়ার বেশি কাজে লাগেনি। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কা সফরে ২টেস্ট ম্যাচের সিরিজ খেলতে যাওয়া ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক জো রুট দুর্দান্ত ব্যাটিং করে ২টি ম্যাচে ১০৬.৫০ এর দুর্দান্ত গড়ে ৪২৬ রান করেছেন। এখন এটা দেখা গুরুত্বপূর্ণ হবে যে আইসিসির এই নতুন পুরস্কার এই খেলোয়াড়দের মধ্যে কে পান।

আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার জোফ অলাডির্স এই ব্যাপারে আইসিসির কথা বলতে গিয়ে বলেছেন যে, “আইসিসি প্লেয়ার অদ দ্য মান্থ ক্রিকেট সমর্থকদের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার সবচেয়ে ভালো একটি উপায়।

এর আসায় ক্রিকেট সমর্থকরা সারা বছর আলাদা আলাদা সময় নিজের পছন্দের খেলোয়াড়দের দুর্দান্ত ক্রিকেট প্রতিভাকে সেলিব্রেট করতে পারবেন। এতে আমরা বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটের মাঠে হতে চলা দুর্দান্ত প্রদর্শনকে (পুরুষ বা মহিলা) সম্মানিত করার একটা সুযোগ পাব”।

এই পুরস্কারের জন্য নামাঙ্কন তিনটি ক্যাটাগরিতে হবে। খেলোয়াড়দের নমিনেশন মাঠে খেলোয়ারদের প্রদর্শনের অনুযায়ী হবে। এছাড়াও আইসিসির ভোটিং অ্যাকাডেমির এতে ৯০% অধিকার থাকবে। বাকি ১০% ভোট আইসিসির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে সমর্থকরা দেবেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.