এক ম্যাচে ১৩টি ঐতিহাসিক রেকর্ড গড়লো ভারত, বিশ্বের ১মাত্র দল হিসেবে এই অর্জন লাভ করলো ভারত

চোট জর্জর খর্ব শক্তির দল নিয়েও ইতিহাস গড়ে গ্যাবা টেস্টে জয় তুলে নিয়েছে ভারত। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পঞ্চম দিনে ৩২৮ রানের টার্গেটে ব্যাট করে ৩ উইকেট হাতে রেখে সিরিজ নিশ্চিত করল টিম ইন্ডিয়া।

ড্র’য়ের দিকে এগিয়ে চলা ম্যাচ শেষ ঘণ্টায় পুরোপুরি ঘুরে গেল। উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থ এবং ওয়াশিংটন সুন্দরের ব্যাটে ভর করে অনবদ্য এবং ঐতিহাসিক টেস্ট জিতে ফেলে ভারত।

‘গ্যাবায় হারে না অস্ট্রেলিয়া’। ১৯৮৮ সালের পর থেকে অস্ট্রেলিয়া ব্রিসবেনে কোনও টেস্ট হারেনি। ভারত এর আগে কখনও গ্যাবায় টেস্ট জেতেনি। দু’টি ছবিই বদলে দিল অজিঙ্কা রাহানের নেতৃত্বাধীন টিম ইন্ডিয়া।

গ্যাবার অজি দুর্গ বিধ্বস্ত করে টেস্ট সিরিজ জিতল ভারত। শেষ হল ব্রিসবেনে অস্ট্রেলিয়ার ৩৩ বছরের সাফল্যের অধ্যায়। এই মাঠে নতুন করে ইতিহাস লিখল ভারত।

ম্যাচে হলো মোট ১৩টি রেকর্ড, দেখে নিন এক নজরে:

১. ভারতীয় ক্রিকেট দল অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট ক্রিকেটে আজ ৩০তম জয়লাভ করে। এখনও পর্যন্ত দুই দলের মধ্যে মোট ১০১টি ম্যাচ খেলা হয়েছে, যার মধ্যে অস্ট্রেলিয়া ৪৩টি আর ভারত ২৯টি ম্যাচ জিতেছি। দুই দলের মধ্যে ২৮টি ম্যাচ ড্র হয়েছে।

২. অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজে জয় পাওয়ার সঙ্গেই ভারতীয় দল পরপর দ্বিতীয়বার অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতল। অজিঙ্ক রাহানের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়াকে ২-১এ হারিয়েছে, এর আগে ২০১৮-১৯ এও ভারতীয় দল ২-১ সিরিজ জিতেছিল।

৩. ভারতীয় দল ব্রিসবেনের মাঠে জয় পাওয়ার সঙ্গেই এই মাঠে নিজেদের প্রথম জয় হাসিল করেছে। এখনও পর্যন্ত ভারত এই মাঠে ৬টি ম্যাচ খেলেছিল। যেখানে ৫টি ম্যাচে টিম ইন্ডিয়া হেরেছিল আর একটি ম্যাচ ড্র হয়।

৪. অস্ট্রেলিয়ার দল এই মাঠে ৩২ বছর ধরে অজেয় ছিল, শেষবার অস্ট্রেলিয়াকে ওয়েস্টইন্ডিজ ১৯৮৮ সালে হারিয়েছিল। এরপর অস্ট্রেলিয়া নিয়মিত এই মাঠে ম্যাচ জিতেছে। ভারত ৩২ বছরের অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড ভেঙে দেয় আর ম্যাচে জয় হাসিল করে।

৫. ঋষভ পন্থ ব্রিসবেন টেস্ট ম্যাচে দুর্দান্ত প্রদর্শন করে নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারের ১০০০ রান পূর্ণ করেন। পন্থ ভারতের হয়ে টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে দ্রুত ১০০০ রান করা ক্রিকেটার হয়েছেন। পন্থ ১৬টি ম্যাচের ২৭তম ইনিংসে এই কৃতিত্ব হাসিল করেছেন।

৬. ঋষভ পন্থ ব্রিসবেন টেস্টে নিজের টেস্ট কেরিয়ারের চতুর্থ আর এই সিরিজের দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি করেছেন। এর আগে পন্থ সিডনির মাঠেও ৯৭ রানের দুর্দান্ত হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন।

৭. মহম্মদ সিরাজ দ্বিতীয় ইনিংসে ১৯.৩ ওভার বোলিং করে ৭৩ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়েছেন। মহম্মদ সিরাজ অস্ট্রেলিয়ার মাঠে দুর্দান্ত বোলারদের তালিকায় নিজের নাম নথিভুক্ত করেছেন।

৮. মহম্মদ সিরাজ এই সিরিজে মোট ১৩টি উইকেট হাসিল করেছেন। তিনি ভারতের হয়ে অস্ট্রেলিয়ায় ডেবিউ টেস্ট সিরিজে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়া বোলার হয়ে গিয়েছেন। সিরাজের আগে ১৯৯১-৯২তে জাভাগল শ্রীনাথ নিজের অভিষেক টেস্ট সিরিজে ১০ উইকেট নিয়েছিলেন।

৯. টেস্টে জানুয়ারি ২০১৮ থেকে জোরে বোলারদের দ্বারা নেওয়া সর্বাধিক ৫ উইকেট:

১৬ – ভারত

১৬ – নিউজিল্যাণ্ড

১৪ – ইংল্যান্ড

১৩ – অস্ট্রেলিয়া

১২ – দক্ষিণ আফ্রিকা

১২ – ওয়েস্টইন্ডিজ

১০. রোহিত শর্মা ব্রিসবেন টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে ৫টি ক্যাচ নিয়েছেন। তিনি কোনো একটি টেস্টে ৫টি ক্যাচ নেওয়া পঞ্চম ভারতীয় খেলোয়াড় হয়েছেন।

১১. চেতেশ্বর পুজারা এই ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাট করে ৫৬ রান করেছেন। এর সঙ্গেই তিনি নিজের টেস্ট কেরিয়ারের ২৮তম হাফসেঞ্চুরি করেছেন।

১২. শুভমান গিল এই ম্যাচে ৯১ রানের ইনিংস খেলেন। এর সঙ্গেই তিনি নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারের দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি করলেন। গিল এই সিরিজে নিজের টেস্ট কেরিয়ারের শুরু করেছেন।

১৩. ওয়াশিংটন সুন্দর এই ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ৬২ আর দ্বিতীয় ইনিংসে ২২ রান করেন। এরসঙ্গেই তিনি ৪টি উইকেট নিয়েছেন। তিনি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাদেরই দেশে ডেবিউ ম্যাচে দুর্দান্ত প্রদর্শন করা প্রথম ভারতীয় অলরাউন্ডার হয়ে গিয়েছেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.