কুলদীপের টুঁটি চিপে ধরলেন সিরাজ, ভারতীয় ড্রেসিংরুমের ঝামেলার ভিডিওয় বিতর্ক তুঙ্গে

ভারতীয় দলের ড্রেসিংরুমের পরিবেশ কি সুস্থ রয়েছে? সোশ্যাল মিডিয়া এমনই প্রশ্নে ছয়লাপ। কারণ আর কিছুই নয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে কুলদীপ যাদবকে হঠাৎ টুঁটি চেপে ধরছেন মহম্মদ সিরাজ। তারপরেই সেই ক্লিপ ভাইরাল।

চেন্নাইয়ে ভারত বনাম ইংল্যান্ডের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে এমনই ঘটনা ঘটল। ঘটনার সময় সম্প্রচারকারী চ্যানেলের ক্যামেরা আসলে ড্রেসিংরুমে ফোকাস করেছিল কোচ রবি শাস্ত্রীকে। ব্যাকগ্রাউন্ডে ছিলেন কুলদীপ এবং মহম্মদ সিরাজ।

রবি শাস্ত্রীকে ক্যামেরা ফলো করলেও সিরাজের কীর্তি নজর এড়ায়নি ক্রিকেটপ্রেমীদের। হঠাৎ করেই রাগের বশে গলা চেপে ধরেন কুলদীপের। তারপরে ক্যামেরা সরিয়ে নেওয়া হয় আগুয়ান শাস্ত্রীর দিকে।

লাইভ ব্রডকাস্টের সেই ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করে বিরাট কোহলির একটি ফ্যান পেজ থেকে প্রশ্ন ছুড়ে দেওয়া হয়, “সিরাজ কুলদীপকে কেন এমন করল?” কেন সিরাজ এমন করলেন, তা নিয়ে সংশয় থাকলেও, অনেক নেটিজেনদের ধারণা, এই বিষয় নিয়ে বেশি জলঘোলা করার প্রয়োজন নেই। কারণ, সিরাজ এবং কুলদীপ দুজনেই ভাল বন্ধু। হয়ত ঠাট্টার ছলে এমনটা সিরাজ করে থাকতে পারেন।

জাতীয় দলের দুই তরুণ তুর্কিকে চেন্নাই টেস্টের প্রথম একাদশে রাখা হয়নি। অস্ট্রেলিয়ায় পেস ব্যাটারির ক্যাপ্টেনের ভূমিকা দারুণভাবে সামলেছিলেন সিরাজ। তার পারফরম্যান্স ক্রিকেট বিশ্বের প্রশংসা আদায় করে নেয়। চোট সরিয়ে অভিজ্ঞ ইশান্ত শর্মা ফিরে আসার জন্য রিজার্ভ বেঞ্চে বসতে হচ্ছে সিরাজকে। অন্যদিকে, রবীন্দ্র জাদেজার অনুপস্থিতিতে কুলদীপকে বসিয়ে শাহবাজ নাদিমকে খেলানো হচ্ছে। কুলদীপকে সুযোগ না দেওয়ায় এমনিতেই দল গঠন নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

এদিকে, প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড থামল ৫৭৮ রানে। দ্বিতীয় দিনের শেষে ইংরেজরা স্কোরবোর্ডে তুলেছিল ৫৫৫/৮। এদিন আরো ২৩ রান যোগ করার ফাঁকেই বাকি দুই উইকেট হারায় ইংল্যান্ড।সবমিলিয়ে জসপ্রীত বুমরা এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন দুজনেই ৩টে করে উইকেট নিলেন। শাহবাজ নাদিম এবং ইশান্ত শর্মার সংগ্রহে ২টো করে শিকার। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই রোহিত শর্মা আউট হয়েছেন জোফ্রা আর্চারের বলে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.