কোহলির ১টি চালাকির কারণে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয় করলো ভারত

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডের পর ৪১২ রানের রোমাঞ্চকর ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ৩৬ রানে হারিয়ে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ নিজেদের করে নিল ভারত।

ভারতের দেওয়া ২২৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ইংল্যান্ড। ব্রিটিশ ওপেনার জেসন রয়কে কোনও রান করতে দেননি ভুবনেশ্বর কুমার। তবে এরপর থেকে ইনিংসের পরের ১৩ ওভার পর্যন্ত ম্যাচ নিজেদের দিকেই ধরে রাখে ইংল্যান্ড।

দলের দ্বিতীয় ওপেনার জস বাটলার ও ডেভিড মালান গড়েন ১৩০ রানের পার্টনারশিপ। মারমুখী ইংল্যান্ড উইকেটরক্ষক ৩৪ বলে ৫২ রান করে আউট হতেই ম্যাচে ফের নিজেদের হাতে নেয় ভারত।

ডেভিড মালান ৪৬ বলে ৬৮ রান করে আউট হতেই আরও চাপে পড়ে যায় ইংল্যান্ড। পরপর সাজঘরে ফিরে জনি বেয়ারস্টো (৭) এবং অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যানও (১)।

শেষবেলায় ব্যাট চালালেও ১১ বলে ১৪ রানের বেশি করতে পারেননি অল রাউন্ডার বেন স্টোকস। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৮৮ রান তুলতে সক্ষম হয় ইংল্যান্ড।

ভারতের হয়ে তিন উইকেট নেন পেসার শার্দুল ঠাকুর। দুই উইকেট নেন অভিজ্ঞ ভুবনেশ্বর কুমার।

এর আগে আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টে়ডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এ ম্যাচেও টসে হেরে যান বিরাট কোহলি। টুর্নামেন্টে আরও একবার আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান।

কিন্তু তাঁর সেই সিদ্ধান্ত ভুল বলে প্রমাণ করেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা ও বিরাট কোহলির পার্টনারশিপ। ম্যাচের ভিত সেখানেই তৈরি হয়ে যায়।

টানা চার ম্যাচে ব্যর্থ রাহুলকে বাদ দিয়ে এবার অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে ওপেন করতে নেমে প্রথম থেকেই মারমুখী মেজাজে ব্যাটিং করতে থাকেন রোহিত শর্মা।

ধ্বংসাত্মক মেজাজে ৩৪ বলে ৬৪ রান করেন রোহিত। চারটি চার ও পাঁচটি ছক্কা আসে তাঁর ব্যাট থেকে। দলীয় ৯৪ রানে রোহিতকে বোল্ড করেন ইংল্যান্ডের অল রাউন্ডার বেন স্টোকস।

রোহিত শর্মা আউট হওয়ার পর পিচে আসেন গত ম্যাচে দুর্দান্ত অর্ধশতরান করা সূর্যকুমার যাদব। চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে তাঁর বিরুদ্ধে বিতর্কিত আউটের জবাব এ ম্যাচে ব্যাট চালিয়েই দেন তিনি।

১৬ বলে ৩২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন সূ্র্য। তিনটি চার ও দুটি ছক্কা আসে তাঁর ব্যাট থেকে। বাউন্ডারিতে এক হাতে সূর্যর দুর্দান্ত ক্যাচ নিয়ে দৌড়ে সীমানা পেরোনার আগে জেসন রয়ের হাতে বল ছুঁড়ে দেন ক্রিস জর্ডান।

ক্রিজের অন্যদিক আঁকড়ে ধরে রাখা অধিনায়ক বিরাট কোহলির নিয়মিত বাউন্ডারিতে রান তুলর যাচ্ছিলেন। অসাধারণ ব্যাটিয় করে ভারতের হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ২৮তম অর্ধশতরান হাঁকান কিং কোহলি। শে

ষ পর্যন্ত ব্যাটিং করে ৫২ বলে ৭ ছক্কা ও ৩ বাউন্ডারিতে ৮০ রান করে ভারতকে জয়সূচক স্কোরের কাছে নিয়ে যান কোহলি।

ইনিংসের শেষ বেলায় বিরাটকে যোগ্য সঙ্গত দেন হার্দিক পান্ডিয়া। স্বভাবোচিত ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ১৭ বলে ৩৯ রান করেন হার্দিক। চারটি চার ও দুটি ছক্কা আসে তাঁর ব্যাট থেকে।

তাতেই শেষ টি-টোয়েন্টিতে সফরকারীদের ২২৫ রানের বিশাল লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে স্বাগতিকরা। যা টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। এর আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২১৮ ছিল তাদের সর্বোচ্চ রান।

এই ম্যাচে বিরাট কোহলি সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে কে এল রাহুলকে দলের বাহিরে রাখেন এবং নিজেই ইনিংসের উদ্বোধন করেন, তিনি ইনিংসটি শুরু করেছিলেন, জয়ের ইনিংস খেলেন। এই একই ইনিংসটি কোথাও গিয়ে ভারতীয় দলের জয়ের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.