গোয়ায় ‘অর্ধন’গ্ন’ ভিডিও ধারণ, আটক পুনম পান্ডে

উল্টাপাল্টা কীর্তি ঘটিয়ে বহুবার সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে ‘না’শা’ তারকা পুনম পান্ডেকে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খোলামেলা ছবি ও ভিডিও পোস্ট করে প্রায়ই বিতর্কের ঝড় তুলেছেন ২৯ বছর বয়সী এ মডেল ও বলিউডের অভিনেত্রী।

এবার লকডাউনে ‘অ’র্ধ’ন’গ্ন’ অবস্থায় সৈকতে ভিডিও ধারণ করার সময় পুলিশের হাতে আটক হলেন এই তারকা।

হিন্দুস্তান টাইমস সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার গোয়া ফ’রো’য়ার্ড পা’র্টির নারী শাখার পক্ষে রাজ্যের সমুদ্রসৈকত এলাকা ও সংরক্ষিত বাঁধে অ’শা’লীন অবস্থায় ভিডিও ধারণের জন্য ক্যা’নাক্যা’নো পু’লিশ পুনম পান্ডের বিরুদ্ধে থানায় এ’ফআ’ইআর দায়ের করে।

বৃহস্পতিবার এই অভিনেত্রীকে আটক করেছে গোয়া পুলিশ। পিটিআইকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন গোয়ার এসপি (দক্ষিণ) পঙ্কজ কুমার সিং। তিনি বলেন, জেরা করার জন্য পুনম পান্ডেকে আটক করা হয়েছে।

গোয়া ফ’রো’য়ার্ড দলের পক্ষে দুর্গাদাস কামাত এ বিতর্কের জেরে গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত ও পানিসম্পদ মন্ত্রী ফিলিপ নেরি রদ্রিগেজের পদত্যাগ দাবি করেছেন। ক্যানাক্যানোর বহু বাসিন্দা প্রশ্ন তুলেছিলেন, পুলিশ কীভাবে এ ধরনের ভিডিও ধারণের অনুমতি দিল।

এরপরই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। পরে গতকাল উত্তর গোয়ার একটি পাঁচতারা হোটেল থেকে ক্যালানগুটে পুলিশ আটক করে পুনম পান্ডেকে। এরপর তাঁকে ক্যানাক্যানো পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

পুনমের একটি ভিডিও ধারণ করা হয় গোয়ার ক্যানাক্যানোর চাপোলি বাঁধে। সংরক্ষিত ওই এলাকা পানিসম্পদ দপ্তরের আওতাধীন।

এ’ন্টা’রটে’ইনমেন্ট সোসাইটি অব গোয়ার অনুমতি ছাড়া সেখানে ভিডিও ধারণ করা বে’আ’ইনি। অ’বৈধভাবে ভিডিও ধারণের অভিযোগে ২৯৪ ধারায় পুনমের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, পরে অন্য ধারাও যোগ করা হতে পারে। ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এক পুলিশ কর্মকর্তা ও এক কনস্টেবলকে সা’সপেন্ড করা হয়েছে।

তবে ঠিক কী কারণে তাঁদের সা’সপে’ন্ড করা হয়েছে, তা জানানো হয়নি। গোয়ার এসপি বলেন, অভ্যন্তরীণ তদন্ত শেষে এ নিয়ে বিস্তারিত জানানো হবে। তবে এটুকু জানানো হয়েছে যে তাঁদের গাফিলতির কারণেই পুনম সেখানে ভিডিও ধারণে যেতে পেরেছেন।

এর আগে ২০১৪ সালে গভীর রাতে মুম্বাইয়ের রাস্তায় অ’শা’লীন আচরণের অভিযোগে পুনমকে গ্রে’প্তার করেছিল পুলিশ। পরে সতর্ক করে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। সে সময় খবরটি ছড়িয়ে পড়লে সম্পূর্ণ ভিন্ন এক গল্প ফেঁদেছিলেন তিনি।

টুইটারে তিনি লিখেছিলেন, ‘গাড়ির ভেতর বসে আমার এক ভাইয়ের সঙ্গে গান শুনছিলাম। গাড়ির ভেতর গান শোনা নিশ্চয়ই কোনো অ’শা’লীন আচরণ নয়। অযথাই আমাকে নিয়ে এ রকম আ’জেবাজে খবর রটানোর কোনো মানে হয় না।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সক্রিয় পুনম। নিজের ওয়েবসাইটের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিয়মিতই ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেন তিনি।

পুনমের তারকাখ্যাতি পাওয়ার পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছে এ মাধ্যম। বিশেষ করে ফেসবুকে তাঁর সক্রিয় উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। ফেসবুকে তাঁর অনুসারীর সংখ্যা ২০ লাখের বেশি।

পুনমের ফেসবুক পেজে আ’পত্তি’কর ছবি ও ভিডিওর জন্য বহু অভিযোগও পেয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। সম্ভবত এ কারণেই সম্প্রতি পুনমের ফেসবুক পেজটি নিষ্ক্রিয় করেছে তারা। পরে ইনস্টাগ্রামে কর্মকাণ্ড শুরু করেছেন পুনম।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.