পুরুষদের যৌ;ন সমস্যার সমাধান দিচ্ছেন সোনাক্ষী

কোনো দ্বিধা ছাড়াই পুরুষদের দিয়ে যাচ্ছেন যৌ;ন সমস্যার সমাধান। আধুনিক যুগেও মানুষ সে;ক্স নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করতে সং’কোচ বো’ধ করেন। নিতান্ত বাধ্য না হলে তারা বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চান না। তবে এক্ষেত্রে নারীরাও আরও এক ধাপ পিছিয়ে।

প্রয়োজনের তাগিদে পুরুষরা তাদের গোপন বিষয় নিয়ে পুরুষ চিকিৎসকদের কাছে মুখ খুললেও নারী চিকিৎসক সংক’টের কারণে বিষয়টি নিয়ে পুরুষ চিকিৎসকদের কাছে মুখ খুলতে বি’ব্রতবোধ করেন নারীরা। তবে এবার দেখা গেল ভিন্ন চিত্র।

বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা সে;ক্স ক্লি;নিক খুলে বসলেন। এবার বিষয়টি খোলাসা করি। সমাজের সেকেলে চিন্তাধারায় আঘাত হানতে চলেছে সোনাক্ষী সিনহার নতুন ছবি ‘খানদানি সাফাখানা’।

সোনাক্ষীর আগামী ছবি ‘খানদানি সাফাখানা’-র গল্পের মূলকথাই হলো সে;ক্স নিয়ে সামাজিক কু;সং’স্কার। ইতোমধ্যেই অবমুক্ত হয়েছে ছবির ট্রেলার।

ট্রেলার দেখে বোঝা যাচ্ছে, হাস্যরসের মধ্যে দিয়ে গো’পন এ ‘ব্যাধি’কে তুলে ধরেছেন পরিচালক শিল্পী দাশগুপ্তা। একটি সে;ক্স ক্লি;নিককে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে চিত্রনাট্য। সোনাক্ষী সিনহার মামা গ্রামের ওই ক্লি;নিক চালাতেন। তার মৃ;ত্যুর পর ক্লি;নিকের ভার এসে পড়ে সোনাক্ষীর ওপরে।

মামার দানপত্র অনুযায়ী, তাকে ৬ মাস চালাতে হবে এই ক্লি;নিক। তারপরই সম্পূর্ণ মালিকানা পাবেন সোনাক্ষী। সেই মতো ক্লি;নিক চালাতে শুরু করেন ভাগ্নী। কিন্তু একজন নারী চালাবেন সে;ক্স ক্লি;নিক!

পুরুষরা খোলাখুলি তাদের সমস্যা বলতে পারবেন তো? না। আকারে-ইঙ্গিতেই রোগীরা বোঝানোর চেষ্টা করে যাচ্ছেন তাদের সমস্যা। মানে সে;ক্স নিয়ে সেই আগের কু;সংস্কার।

তবে সোনাক্ষী চান মানুষ দ্বি’ধাহীনভাবে এনিয়ে কথা বলুক। সোনাক্ষীর লড়াইয়ে পাশে পান ভালোবাসার মানুষকে। আর ছবিতে গানের সঙ্গে অনেকখানি দৃশ্যজুড়ে রয়েছেন বাদশা।

তার মতো সেলিব্রিটিকে নিয়ে যৌ;নতার বিষয়ে সচেতনতার লক্ষ্যে প্রচারে নামেন সোনাক্ষী। সোনাক্ষী কি পারবেন সে;ক্স নিয়ে ব’দ্ধঘরের পর্দা সরাতে? সেটা জানা যাবে নতুন এই ছবিতে।

পুরুষদের সে;ক্সুয়াল সমস্যা নিয়ে ইতোমধ্যেই তৈরি হয়েছে ‘শুভ মঙ্গল সাবধান’। ছবিতে প্রশংসিত হয়েছিল আয়ুষ্মান খুরানা ও ভূমি পেডনেকরের অভিনয়।

‘খানদানি সাফাখানা’-ও আরও একটা বাস্তবধর্মী অথচ অন্যরকম ছবি হতে চলেছে বলে মনে করছেন সমালোচকরা। ২ জুন সোনাক্ষীর জন্মদিনের আগে শেষ হয়েছে ‘খানদানি সাফাখানা’-র শুটিং।

ছবির প্রযোজনা করেছেন ভূষণ কুমার, মহাবীর জৈন, মৃঘদীপ সিং লাম্বা, দিব্যা খোসলা কুমার এবং কৃষণ কুমার। সোনাক্ষী ছাড়াও এই ছবিতে রয়েছেন বরুণ শর্মা ও বাদশা। সোনাক্ষীর ভাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন বরুণ শর্মা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.