বি’ছানায় তু’ফান তুলতে গিয়ে, হাসপাতালে ভর্তি দম্পতি !

ত্রীর সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই বড় ধ’রনের বি’পদে প’ড়েন ওই স্বামী।দাম্পত্য জীবনে সুখ ফিরিয়ে আনতে স্বামীর কাছে স্ত্রী’র ‘বিশেষ আবেদন’। নিজে’র স্ত্রী’র এমন আবেদনে স্বামীও সাড়া দেন। এখানে ঘ’টে যায়

বিপত্তি।তাহলে ঘ’টনাটি খু’লে বলা যাক- স্ত্রী’র দেয়া ‘বিশেষ মলমে’ বাড়বে শা’রীরিক সুখ।স্ত্রীযদিও শেষ পর্যন্ত বড় ধ’রনের বি’পদের হাত থেকে র’ক্ষা পেয়েছেন তিনি।

ভারতের মহারাষ্ট্রে এই ঘ’টনাটি ঘ’টেছে।ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী জা’না যায়,স’ম্প্রতি ভারতের মুম্বাই মহারাষ্ট্রের এক যুবক তার

স্ত্রী’র বি’রুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অ’ভিযোগ এনেছেন। ওই যুবক ভারতীয় সে’নাবা’হিনীতে কাজ করেন। কিছুদিন আগে ছুটির সময়ে তিনি নিজে’র বাড়িতে আসেন।আর সেই সময়ে ঘ’টে এই বিপত্তি।

ভু’ক্তভোগী ওই স্বামীর অ’ভিযোগ, তার স্ত্রী’ বিশেষ একটি মলম দেন তাকে। ওই মলমটি গো’পনাঙ্গে দিলেই শা’রীরিক উত্তে’জনা বেড়ে যায় বলে তাকে (স্বামীকে) জা’নায় তার স্ত্রী’।

ওই যুবক স্ত্রী’র কথামতো মলমটি পু’রুষাঙ্গে মেখে নেন। কিন্তু, এরপরই প্রচ’ণ্ড ব্য’থা শুরু হয় ওই যুবকের গো’পনাঙ্গে।শেষ পর্যন্ত ব্য’থা সর্হ্য ক’রতে না পেরে চিকি’ৎসকের কাছে যান তিনি।

চিকিৎ’সার পরে ওই যুবক এখন মোটামুটি সু’স্থ রয়েছেন বলে জা’না যায়। ওই স্বামীর অ’ভিযোগে আরও বলেন, ওই মলমের মধ্যে বি’ষ মাখানো ছিল। প্রেমিকের স’ঙ্গে মিলে তাকে হ’ত্যার প’রিকল্পনা করেছিল তার স্ত্রী’।এই অ’ভিযোগের ভিত্তিতে ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পু’লিশ। এ ঘ’টনার পর থেকে পলাতক রয়েছে ওই গৃহবধূর প্রেমিক। ইতোমধ্যে তার খোঁ’জে অ’ভিযান চালিয়ে যাচ্ছে পু’লিশ।

স্ত্রীর সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই বড় ধ’রনের বি’পদে প’ড়েন ওই স্বামী।দাম্পত্য জীবনে সুখ ফিরিয়ে আনতে স্বামীর কাছে স্ত্রী’র ‘বিশেষ আবেদন’। নিজে’র স্ত্রী’র এমন আবেদনে স্বামীও সাড়া দেন। এখানে ঘ’টে যায় বিপত্তি।তাহলে ঘ’টনাটি খু’লে বলা যাক- স্ত্রী’র দেয়া ‘বিশেষ মলমে’ বাড়বে শা’রীরিক সুখ।স্ত্রীযদিও শেষ পর্যন্ত বড় ধ’রনের বি’পদের হাত থেকে র’ক্ষা পেয়েছেন তিনি।

ভারতের মহারাষ্ট্রে এই ঘ’টনাটি ঘ’টেছে।ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী জা’না যায়,স’ম্প্রতি ভারতের মুম্বাই মহারাষ্ট্রের এক যুবক তার
স্ত্রী’র বি’রুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অ’ভিযোগ এনেছেন। ওই যুবক ভারতীয় সে’নাবা’হিনীতে কাজ করেন। কিছুদিন আগে ছুটির সময়ে তিনি নিজে’র বাড়িতে আসেন।আর সেই সময়ে ঘ’টে এই বিপত্তি।

ভু’ক্তভোগী ওই স্বামীর অ’ভিযোগ, তার স্ত্রী’ বিশেষ একটি মলম দেন তাকে। ওই মলমটি গো’পনাঙ্গে দিলেই শা’রীরিক উত্তে’জনা বেড়ে যায় বলে তাকে (স্বামীকে) জা’নায় তার স্ত্রী’।

ওই যুবক স্ত্রী’র কথামতো মলমটি পু’রুষাঙ্গে মেখে নেন। কিন্তু, এরপরই প্রচ’ণ্ড ব্য’থা শুরু হয় ওই যুবকের গো’পনাঙ্গে।শেষ পর্যন্ত ব্য’থা সর্হ্য ক’রতে না পেরে চিকি’ৎসকের কাছে যান তিনি।

চিকিৎ’সার পরে ওই যুবক এখন মোটামুটি সু’স্থ রয়েছেন বলে জা’না যায়। ওই স্বামীর অ’ভিযোগে আরও বলেন, ওই মলমের মধ্যে বি’ষ মাখানো ছিল। প্রেমিকের স’ঙ্গে মিলে তাকে হ’ত্যার প’রিকল্পনা করেছিল তার

স্ত্রী’।এই অ’ভিযোগের ভিত্তিতে ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পু’লিশ। এ ঘ’টনার পর থেকে পলাতক রয়েছে ওই গৃহবধূর প্রেমিক। ইতোমধ্যে তার খোঁ’জে অ’ভিযান চালিয়ে যাচ্ছে পু’লিশ।

স্ত্রীর সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই বড় ধ’রনের বি’পদে প’ড়েন ওই স্বামী।দাম্পত্য জীবনে সুখ ফিরিয়ে আনতে স্বামীর কাছে স্ত্রী’র ‘বিশেষ আবেদন’। নিজে’র স্ত্রী’র এমন আবেদনে স্বামীও সাড়া দেন। এখানে ঘ’টে যায়

বিপত্তি।তাহলে ঘ’টনাটি খু’লে বলা যাক- স্ত্রী’র দেয়া ‘বিশেষ মলমে’ বাড়বে শা’রীরিক সুখ।স্ত্রীযদিও শেষ পর্যন্ত বড় ধ’রনের বি’পদের হাত থেকে র’ক্ষা পেয়েছেন তিনি।

ভারতের মহারাষ্ট্রে এই ঘ’টনাটি ঘ’টেছে।ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী জা’না যায়,স’ম্প্রতি ভারতের মুম্বাই মহারাষ্ট্রের এক যুবক তার
স্ত্রী’র বি’রুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অ’ভিযোগ এনেছেন। ওই যুবক ভারতীয় সে’নাবা’হিনীতে কাজ করেন। কিছুদিন আগে ছুটির সময়ে তিনি নিজে’র বাড়িতে আসেন।আর সেই সময়ে ঘ’টে এই বিপত্তি।

ভু’ক্তভোগী ওই স্বামীর অ’ভিযোগ, তার স্ত্রী’ বিশেষ একটি মলম দেন তাকে। ওই মলমটি গো’পনাঙ্গে দিলেই শা’রীরিক উত্তে’জনা বেড়ে যায় বলে তাকে (স্বামীকে) জা’নায় তার স্ত্রী’। ওই যুবক স্ত্রী’র কথামতো মলমটি পু’রুষাঙ্গে মেখে নেন। কিন্তু, এরপরই প্রচ’ণ্ড ব্য’থা শুরু হয় ওই যুবকের গো’পনাঙ্গে।শেষ পর্যন্ত ব্য’থা সর্হ্য ক’রতে না পেরে চিকি’ৎসকের কাছে যান তিনি।

চিকিৎ’সার পরে ওই যুবক এখন মোটামুটি সু’স্থ রয়েছেন বলে জা’না যায়। ওই স্বামীর অ’ভিযোগে আরও বলেন, ওই মলমের মধ্যে বি’ষ মাখানো ছিল। প্রেমিকের স’ঙ্গে মিলে তাকে হ’ত্যার প’রিকল্পনা করেছিল তার স্ত্রী’।এই অ’ভিযোগের

ভিত্তিতে ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পু’লিশ। এ ঘ’টনার পর থেকে পলাতক রয়েছে ওই গৃহবধূর প্রেমিক। ইতোমধ্যে তার খোঁ’জে অ’ভিযান চালিয়ে যাচ্ছে পু’লিশ।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.